গুলশান ডিসিসি মার্কেট | গুলশান ডিসিসি মার্কেট বন্ধ কবে

5/5 - (1 vote)

গুলশান ডিসিসি মার্কেট রাজধানী ঢাকা জেলার অন্যতম জনপ্রিয় একটি মার্কেট। ১৯৮৬ সালে প্রতিষ্ঠিত ঢাকা তে দুইটি ডিসিসি মার্কেট রয়েছে, একটি গুলশান ১ ডিসিসি মার্কেট এবং অন্যটি গুলশান ২ ডিসিসি মার্কেট। আজকে বিস্তারিত জানতে চলেছি এই সম্পর্কে।

গুলশান ডিসিসি মার্কেট বাংলাদেশের ঢাকা শহরে অবস্থিত একটি প্রসিদ্ধ কমার্শিয়াল এলাকা। এটি গুলশান বাণিজ্যিক এলাকা নামেও পরিচিত। গুলশান ডিসিসি মার্কেটে বিভিন্ন প্রকারের দোকান, বাজার, শপিং মল, রেস্টুরেন্ট, ক্যাফে, অফিস কমপ্লেক্স এবং বাসবাসিক এলাকা রয়েছে। এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিনোদন এবং বাণিজ্যিক হাব হিসেবে পরিচিত।

গুলশান ডিসিসি মার্কেট

গুলশান ডিসিসি মার্কেট (Gulshan DCC Market) যার পূর্ণ নাম গুলশান ১ নং দক্ষিন ডি.সি.সি পাকা মার্কেট। এটি বিভিন্ন দেশি ও বিদেশি পণ্যের জন্য বেশ জনপ্রিয়। বিশেষ করে প্রশাসনের লোকজন যেমন মেজর, কর্নেল সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিডিআর ইত্যাদি।

গুলশান ডিসিসি মার্কেট
গুলশান ডিসিসি মার্কেট

জেনে নিনঃ ঢাকায় কম দামে কেনাকাটার সেরা ৩টি মার্কেট

এখানে বেশ কিছু নামি দামি পণ্য সহ দারুন সব পন্নের ছড়াছড়ি রয়েছে। কিছু প্রোডাক্ট এর কতাহ না বললেই নয়, যেগুলো এখানের বিক্ষাত।

  • হস্তশিল্প
  • চিত্রশালা
  • আর্ট গ্যালারি
  • ক্রীড়া আইটেম
  • পার্লার
  • শোপিস স্টোর
  • চামড়ার বিভিন্ন জিনিসপত্র
  • প্রসাধনী এবং
  • গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

গুলশান ডিসিসি মার্কেটে আপনি বিভিন্ন প্রকারের পণ্য এবং পরিষেবা পেতে পারেন। যেমন পোশাক, আকর্ষণীয় আভুষণ, ইলেকট্রনিক্স, বই, খাবার, রোজগারের সুযোগ, এবং আরও অনেক কিছু। এই এলাকা আপনার শপিং এবং প্রিয়জন এর সাথে একত্রে খাবার খাওয়ার জন্য একটি আদর্শ জায়গা হবে।

এই মার্কেটের কিছু গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হল:

  • বিভিন্ন দোকান ও বাজার: গুলশান ডিসিসি মার্কেটে বিভিন্ন প্রকারের দোকান এবং বাজার রয়েছে, যেখানে আপনি পোশাক, আকর্ষণীয় আভুষণ, ইলেকট্রনিক্স, খাবার, বই এবং অন্যান্য পণ্য কেনার সুযোগ পাবেন।
  • ব্র্যান্ডেড শপিং মল: এই মার্কেটে বিভিন্ন ব্র্যান্ডেড শপিং মল রয়েছে, যেখানে আপনি আপনার পছন্দের ব্র্যান্ডের পণ্য কিনতে পারবেন।
  • রেস্টুরেন্ট এবং ক্যাফে: মার্কেটে বিভিন্ন ধরণের খাবারের স্থান রয়েছে, যেখানে আপনি বিশেষ ডিশেস এবং আপনার পছন্দের খাবার উপভোগ করতে পারেন। বরাবরের মতই এখানকার খাবার ঢাকার অন্যতম জনপ্রিয়। তাই ত দূর দূরান্ত থেকে ভোজন প্রেমিরা খাবারের সন্ধানে ছুটে আসেন এখানে।
  • বিনোদন এবং সান্নাটনিক স্থান: এখানে বিনোদন এবং সান্নাটনিক স্থানগুলির ব্যাপক প্রচারনা রয়েছে, যেখানে আপনি আপনার মনের মত সময় কাটাতে পারেন।

এটি শহরের একটি গুরুত্বপূর্ণ শপিং সেন্টার হিসেবে রাজধানী ঢাকার বুকে মাথা উচু করে দাড়িয়ে আছে। এই মার্কেটে আপনি বিভিন্ন প্রকারের বৈচিত্রিত অভিজাত পণ্য এবং সেবা পাবেন, যা অন্য কোথাও পাবেন না।

এই নামে এই রাজধানী ঢাকা শহরে মোট দুইটি মার্কেট রয়েছে। দুটি মার্কেটই বেশ জনপ্রিয় এখানকার আসবাবপত্রের জন্য। দোকানীদের ব্যাবহার ও অনেক ভাল। মার্কেট দুটি হলঃ

  • গুলশান ১ ডিসিসি মার্কেট
  • গুলশান ২ ডিসিসি মার্কেট

গুলশান ১ ডিসিসি মার্কেট

এই মার্কেট টি গুলশান ১ গোল চত্তরের ডান দিকে অবস্থিত। এখানে ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ১৬৫ টি দোকান রয়েছে। দুই তালা ভবন বিশিষ্ট এই মার্কেটে ১ম তালায় অফিস, বাসা বাড়ির জিনিসপত্র, জুয়েলারি পণ্য এবং সাইকেল রয়েছে।

এছাড়াও এখানে পাবেন সকল প্রসাধনী সামগ্রী, বাচ্চাদের খেলনা গাড়ি সহ শোবিজ সহ সব ধরনের হালকা জিনিসপত্র। ২য় তালাতে ইলেকট্রনিক্স দোকান, টেইলারস, খেলাধুলার সরঞ্জাম, চশমার দোকান সহ জুয়েলারি ও সাউন্ড সিস্টেমের দোকান রয়েছে।

গুলশান ২ ডিসিসি মার্কেট

এই মার্কেট টি মহাখালি থেকে পশ্চিমে গুলশান ১ ডিসিসি মার্কেট থেকে বাম দিকে গুলশান ২ তে অবস্থিত একটি জনপ্রিয় মার্কেট। এখানে মোট দোকান সংখ্যা প্রায় ১২০টি। এখানের দোকানগুলোতে পাওয়া যায় হস্তশিল্প, চামড়া, প্রসাধনী, শোপিজ, পার্লার, গাড়ি পার্কইং সহ বেশ কয়েকটি গ্যালারী রয়েছে।

এর আশেপাশের কিছু জনপ্রিয় মার্কেট হলঃ

নামবিস্তারিত
গাউছিয়াঢাকা গাউছিয়া মার্কেট
মৌচাকমৌচাক মার্কেট
যমুনাযমুনা ফিউচার পার্ক
হোপ মার্কেটমিরপুর হোপ মার্কেট
গুলিস্তানগুলিস্তান পাতাল মার্কেট
একনজরে ঢাকার সেরা মার্কেট সমুহ

গুলশান ডিসিসি মার্কেট কবে বন্ধ থাকে

  • গুলশান ডিসিসি মার্কেট গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর মার্কেটিং নিয়ম অনুসারে প্রতি রবিবার বন্ধ থাকে। এছাড়া প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

গুলশান ডিসিসি মার্কেট লোকেশন

গুলশান ডিসিসি মার্কেট ১ যেটি মহাখালি থেকে সামান্য ভিতরে গুলশান ১ গোল চত্তরে অবস্থিত। অপরদিকে গুলশান ২ ডিসিসি মার্কেট গুলশান ২ এ অবস্থিত। সহজভাবে বলতে গেলে গুলশান ২ গোল চত্তরের বাম পাশে অবস্থিত।

এই মার্কেট টি সিলগালা করে দেওয়া হয়েছিল ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায়। পরবর্তীতে দকান দার দের অবরুধ কর্মসূচি মাথায় রেখে নিয়ম জারি করে এই মার্কেট চলছে।

Similar Posts