শিশু পার্ক | ঢাকা শিশু পার্ক নতুন সময়সূচী 2024

4.5/5 - (8 votes)

রাজধানীতে শিশুদের জন্য বিনোদনের জায়গা বলতে প্রথমেই যে নামটি ছিল সেটি শাহবাগের শিশু পার্ক। ২০১৯ সালের মধ্যেই কাজ শেষ হবার কথা থাকলেও বিভিন্ন জটিলতায় সেই প্রকল্পের মেয়াদ বেড়েছে ২০২৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।

এত দীর্ঘ সময় ধরে কাজ চলায় অনেকেই জানেন না এখনও বন্ধ রয়েছে নাকি খোলা রয়েছে। তাই এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবো। তবে জানিয়ে রাখি যে বর্তমানে শিশু পার্ক ধানমন্ডি তে স্থানান্তর করা হয়েছে যার বর্তমান নাম শেখ রাসেল শিশু পার্ক।

শিশু পার্ক
ঢাকা জাতীয় শিশু পার্ক

ঢাকা শিশু পার্ক

ঢাকা শিশু পার্ক( Dhaka Shishu park) যার পূর্ব নাম শহিদ জিয়া শিশু পার্ক। বর্তমান সরকার এই নামটি পরিবর্তন করে ঢাকা শিশুপার্ক নামকরণ করে। শিশুদের অন্বেষণ ও বিনোদনের জন্য অনেক আকর্ষণীয় একটি ভ্রমন স্থান এই পার্কটি।

আপনি কি শিক্ষা, ট্রেনের খবর, ট্রাভেল গাইড, মার্কেট গাইড সহ সকল জেলার আপডেট পেতে চান ? তাহলে আপনি উঁকি মারতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেজ এ!!

শাহবাগে প্রায় ১৫ একর জমির উপরে ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন এই পার্কটি প্রতিষ্ঠিত করে পরবর্তীতে ১৯৮৩ সালে এই পার্কটি শিশুদের স্থান হিসাবে দায়িত্বে ছিল স্থানীয় সরকার প্রশাসন। পরবর্তীতে এটির রক্ষণাবেক্ষণ অর্থাৎ দেখাশোনার দায়িত্ব ছিল ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের উপরে। ঢাকা সিটি কর্পোরেশন যখন দুই ভাগে বিভক্ত হয় তখন পার্কের দায়িত্ব পায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন।

শহরের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্পটগুলির মধ্যে একটি হল শিশুপার্ক, যা বাচ্চাদের খেলাধুলা এবং শেখার জন্য একটি নিরাপদ এবং মজাদার পরিবেশ কেন্দ্র। ছুটির দিনগুলোতে অনেকে আসেন আবার ফিরে যান হতাশা নিয়ে। হতাশা হবের কোন কারন নেই কেননা শিশুদের আর একটি জনপ্রিয় পার্ক হচ্ছে শ্যামলী শিশু মেলা

যেখানে রোজ তৈরি হবার কথা খুশির উপলক্ষ সেখানে তৈরি হয় হতাশার গল্প। শিশু পার্ক ঢাকার অন্যতম জনপ্রিয় স্থান। পরিবার থেকে শুরু করে তরুণ, প্রাপ্তবয়স্ক, সব বয়সের মানুষ এই পার্কগুলিতে আসে এখানকার তাজা বাতাস এবং প্রাণবন্ত পরিবেশ উপভোগ করতে।

কোথায় অবস্থিত

ঢাকা শিশু পার্ক ঢাকা শহরে প্রাণকেন্দ্র, শাহবাগে অবস্থিত। এর পূর্বে রমনা পার্ক, পশ্চিমে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, উত্তরে রমনা পার্ক ও বারডেম হাসপাতাল এবং দক্ষিনে তৎকালীন রেসকোর্স ময়দান( বর্তমান সোহরাওয়ারদি উদ্যান) অবস্থিত।

শিশু পার্ক সময়সূচী
ঢাকা শিশু পার্ক

শিশু পার্ক কি খোলা ২০২৪

শাহবাগ জাতীয় শিশু পার্ক বর্তমানে বন্ধ রয়েছে। বন্ধের দিন ছাড়া আগে প্রতিদিন দুপুর ১ টা থেকে ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকত। তবে বন্ধের দিনেও দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত দরিদ্র, অসহায় ও পথ শিশুদের জন্য খোলা থাকত।

তবে বাইরে বন্ধ থাকার কোন নোটিশ নেই নেই কোন প্রচারণা তাই ঢাকা এবং দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যারা শিশু পার্কে ঘুরবেন বলে সন্তানদের নিয়ে আসছেন তারা দেখতে পাচ্ছেন শুধু কংক্রিটের এক বিরানভূমি।

কিন্তু অনেকেই জানেন না যে, চার বছরেরও বেশি সময় ধরে খোলেনি রাজধানীর শাহবাগের শিশু পার্কটি। কবে খুলবে তারও কোন স্পষ্ট নির্দেশনা নেই। ফলে এখনো অনেকেই শিশুদের নিয়ে এখানে এসে দেখছেন পার্কের কোন অস্তিত্বই নেই। অনেক পরিকল্পনা নিয়ে এলেও ফিরে যাচ্ছেন হতাশা নিয়ে।

তবে হতাশা হবার কোন কারন নেই কেননা এই পার্কের সকল সুবিধা পাওয়া যাবে শ্যামলী শিশু মেলা তে। তো দেরি কেন ঘুরতে আসুন আজই।

শ্যামলী শিশু মেলা তে রয়েছেঃ

  • একটি খেলার মাঠ
  • নামাজের পৃথক স্থান
  • দোলনা
  • চর্কি
  • ছোটদের ট্রেন
  • উড়ন্ত নভোযান
  • ঘোড়া রাইডস
  • জঙ্গি বিমান এবং
  • বাহারি ফুল ও কসমেটিক্স এর দোকান সহ আরও অনেক কিছু।
এর আসে পাসে দর্শনীয় স্থানবিস্তারিত
শিশু মেলাশ্যামলী শিশু মেলা
সামরিক জাদুঘরবঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর
রমনা পার্করমনা পার্ক

ঢাকা শিশু পার্ক সময়সূচী ২০২৪

গ্রীষ্মকালীন সময়ে শিশুপার্ক শনিবার থেকে মঙ্গলবার দুপুর ১টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত এবং শীতকালীন সময়ে সাপ্তাহিক বন্ধের দিন ছাড়া ২টা থেকে ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকলেও বর্তমানে ২০২৩ সালে এটি স্থায়ীভাবে বন্ধ রয়েছে। তাই বলা যায় নতুন সময়সূচী অনুসারে এটি ২০২৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

প্রায় পাঁচ (০৫) বছর ধরে এটি বন্ধ রয়েছে। না জানার কারণে প্রায় প্রতিদিনই অসংখ্য মানুষ ভিড় করেন এই বন্ধ শিশু পার্কের সামনে। রাজধানীতে শিশুদের জন্য জায়গার অভাব কতটা প্রকট তাই প্রমান করে এটি।

কবে নাগাদ এটি খুলবে সেটি জানাতে না পারলে অন্তত সরকারের উচিত জনগণকে জানানো যে এটি বন্ধ রয়েছে তাতে করে শিশু বা অভিভাবকদের এখান থেকে ফেরত যেতে হয় না।

ঢাকা শিশুপার্ক সময়সূচী ২০২৪

ঢাকা শিশু পার্ক আগে দুপুর ১ টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকলেও বর্তমানে তা সম্পূর্ণরূপে বন্ধ রয়েছে।

শিশুপার্ক কি খোলা ২০২৪

না। এটি বর্তমানে স্বাধীনতা স্তম্ভের প্রসারতার প্রকল্পের কাজের জন্য প্রায় পাঁচ বসর ধরে বন্ধ রয়েছে। তবে এই প্রকল্পের কাজ ২০২৪ সালের ডিসেম্বর মাসে শেষ হলে পুনরায় শাকায় আলাদা জায়গায় একটি শিশু মেলা করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ফজলে নুর তাপস।

Similar Posts