Shishu Mela Shyamoli | শিশু মেলা সময়সূচী 2024

4.5/5 - (2 votes)

শিশু মেলা (shishu mela) বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় একটি বিনোদন পার্ক। এই পার্কটি বর্তমানে ডিএনসিসি ওয়ান্ডারল্যান্ড (DNCC Wonderland) এর আওতাভুক্ত রয়েছে। শ্যামলী শিশু মেলা কিভাবে যাবেন, টিকেট মূল্য, সাপ্তাহিক বন্ধের দিন এবং সময়সূচী নিয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

শিশু মেলা (Shishu Mela) রাজধানী ঢাকার শ্যামলী তে অবস্থিত একটি জনপ্রিয় পার্ক। ছুটির দিনে পরিবার-পরিজন, বন্ধুবান্ধব মিলে আনন্দঘন সময় কাটাতে চলে আসতে পারেন। যদিও এখানে শিশু দের জন্য বেশ কিছু জনপ্রিয় রাইডস রয়েছে

শিশু মেলা
শিশু মেলা (Shishu Mela)

শিশু মেলা | Shishu Mela shyamoli

রাজধানী ঢাকার সর্বপ্রথম বেসরকারিভাবে নির্মিত পার্ক হচ্ছে শিশু মেলা ( Shishu Mela)। যেটির বর্তমান নাম ডিএনসিসি ওয়ান্ডারল্যান্ড (DNCC Wonderland)। ১৯৮৫ সাল থেকে যাত্রা শুরু করা এই শিশু মেলা। পরিবারের সবার জন্য বিশেষ করে পরিবারের ছোট সদস্যদের জন্য এটি একটি আদর্শ এবং আকর্ষণীয় বিনোদন কেন্দ্র।

তবে আর দেরি কেন আজ ঘুরে আসুন আপনার ছোট ছোট সোনামণিদের সাথে নিয়ে। মজার একটা সময় কাটিয়ে যান পরিবারের সকলের সাথে। কেননা সপ্তাহের কর্মব্যস্ততার মাঝে একটু হলেও রিফমেন্ট দরকার। তাই আমি কমেন্ট করবো শিশু মেলাতে একবার যেতে কারণ এত বড় এরিয়া ঢাকা শহরের মধ্যে খুব কমই আছে এর আয়তন প্রায় প্রায় ১.৮০ একর।

যদিও এর চেয়ে বড় একটি পার্ক হচ্ছে যমুনা ফিউচার পার্ক যার আয়তন প্রায় ১০ একর এর মত। চাইলে এখানেও ঘুরে আসতে পারেন। শিশু মেলা হলো এমন একটি বিনোদন কেন্দ্র যেখানে কোন সাপ্তাহিক বন্ধ নেই।

কোথায় অবস্থিত

এটি রাজধানীর ঢাকার প্রাণকেন্দ্র শ্যামলীতে অবস্থিত। আরো সহজ ভাবে বলতে গেলে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং হৃদরোগ হাসপাতালের উত্তরে অবস্থিত।

এ পার্কের উত্তরে শ্যামলী বাস টার্মিনাল, দক্ষিণে হৃদরোগ হাসপাতাল ও কলেজ গেট অবস্থিত। একইভাবে পূর্বে আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিস ও রেডিও এবং পশ্চিমে পপুলার হাসপাতাল ও আশা ইউনিভার্সিটি অবস্থিত।

ঢাকা শিশু হাসপাতালের একদম কাছেই শিশুমেলা অবস্থিত। অনেকেই পঙ্গু হাসপাতাল চিনে থাকেন, পঙ্গু হাসপাতাল থেকে মাত্র ২ মিনিটের পথ।

আপনি কি শিক্ষা, ট্রেনের খবর, ট্রাভেল গাইড, মার্কেট গাইড সহ সকল জেলার আপডেট পেতে চান ? তাহলে আপনি উঁকি মারতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেজ এ!!

এর আশেপাশের দর্শনীয় স্থানের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর এবং বাংলাদেশ বিমান বাহিনী জাদুঘর। এছাড়াও রয়েছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর।

কিভাবে যাবেন

রাজধানী ঢাকার যে কোন প্রান্ত থেকে খুব সহজেই এখানে আসা যাবে। বাসে, মেট্রোরেলে, সিএনজি, অটো রিক্সা, কিংবা মোটরসাইকেলে করা আসা যাবে। তবে সবচেয়ে নিরাপদ ও ঝামেলা মুক্ত হচ্ছে বাসে আসা।

চলুন জেনে নেওয়া যাক ঢাকার কোন কোন জায়গা থেকে কোন কোন বাস শ্যামলী যায়।

যাত্রার স্থানআসার উপায়
মিরপুর ১মিরপুর ১ থেকে মেট্রো, দিশারী, ট্রান্সসিল্ভা, বাহন সহ বেশ কিছু বাস যায়।
মিরপুর ১০-১২মিরপুর ১০ নম্বর গোল চত্বর থেকে বিহঙ্গ, শিকড়, মিরপুর মেট্রো, খাজা বাবা ইত্যাদি বাসে করে প্রথমে আগারগাঁও নামতে হবে। তারপর সেখান থেকে রিক্সা কিংবা পায়ে হেঁটে যাওয়া যাবে।
গাবতলী/ সাভারএখান থেকে গাবতলী ৮ নং বাস বঙ্গবন্ধু এয়ারপোর্ট ট্রান্সপোর্ট, এম এম লাভ্লি, ওয়েলকাম এবং বৈশাখীসহ বেশ কিছু বাস রয়েছে।
গুলিস্থান/ পল্টন এখান থেকে মিরপুর গামী যে কোন বাসে আসা যাবে। উল্লেখযোগ্য বাস সমূহের মধ্যে দিশারী, বাহন, ট্রান্স সিলভা, নিউ ভিশন, তানজিল ইত্যাদি।
মৌচাক/ মালিবাগএখান থেকে সরাসরি আসতে হলে আয়াত বাসে আগারগাও বাস স্টেশন নামতে হবে। অথবা স্বাধীন বাসে মোহাম্মদপুর নামতে হবে।তারপর রিক্সায়।
নারায়ণগঞ্জএখান থেকে সরাসরি হিমাচল বাসে আগারগাও বাস স্টেশন। মেঘলা পরিবহনে কলাবাগান নেমে মিরপুর মেট্রো বাসে সরাসরি।
গাজীপুর/এয়ারপোর্টস্টেশন থেকে সরাসরি প্রজাপতি পরিবহন এ আসা যাবে। তবে বসুমতি পরিবহনে টেকনিক্যাল নেমে যেকোনো বাসে আসা যাবে। বিকাশ পরিবহনে জিয়া উদ্যান নেমে রিক্সায় আসা যাবে।
রামপুরা/বাড্ডাএখান থেকে সরাসরি আলিফ বাসে আসা যাবে। তুমি ভেঙ্গে আসতে চাইলে মহাখালী এসে বৈশাখী পরিবহনেও আসা যাবে।
আসার উপায়

যা যা রয়েছে

এখানে ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় ২০০ টিরও বেশি রাইডস রয়েছে। এসবের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি হচ্ছে ট্রেন, কার, থ্রী-ডি রোলার, নাগরদোলা ইত্যাদি।

এছারাও রয়েছেঃ

  • চুক চুক ট্রেন
  • নাগরদোলা
  • হেলিকপ্টার
  • বাম্পার কার
  • মিনি ট্রেন
  • ভিডিও গেমস
  • এনিমেশন
  • ব্ল্যাক হোল
  • ড্রাগন রোলার
  • ওয়ান্ডার হুইল
  • ব্যাটারি চালিত কার
  • প্যারাট্রুপার
  • ঘোড়ার রাইডস এবং
  • হানি সুইং সহ মজার মজার রাইডস।

শিশু মেলা শ্যামলী সময়সূচী ২০২৪

গ্রীষ্মকালীন সময় অর্থাৎ মার্চ থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত শিশু মেলা সকাল দশটা (১০) থেকে রাত ৯ টা ৩০ পর্যন্ত খোলা থাকে। উপর থেকে শীতকালীন সময়ে অর্থাৎ নভেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পর্যন্ত খোলা থাকে।

পরিবার সহ ঘুরে আসুন সামরিক জাদুঘর

ঢাকা অন্যতম একটি বিনোদনমূলক পার্ক শ্যামলী শিশু মেলা সপ্তাহের সাত দিনই খোলা থাকে, কোন সাপ্তাহিক বন্ধ নেই। এমনকি সরকারি বন্ধের সময়ও খোলা থাকে সাধারণত।

বারশিশু মেলা সময়সূচী
Saturday10am to 9.30pm
Sunday10am to 9.30pm
Monday10am to 9.30pm
Tuesday10am to 9.30pm
Wednessday10am to 9.30pm
Thursday10am to 9.30pm
Friday9am to 9.30pm
Shishu Mela schedule 2023

শিশুমেলা শ্যামলী কবে বন্ধ থাকে

  • শ্যামলী শিশুমেলা (Shyamoli Shishu Mela) রাজধানী ঢাকার জনপ্রিয় পার্ক গুলোর মধ্যে একটি জিটি আয়তনের দিক দিয়েও অনেক বড় প্রায় ১.৮০ একর। এটি সপ্তাহের সাত দিনই অর্থাৎ শনি থেকে শুক্রবার খোলা থাকে। প্রতিদিন সকাল আটটা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

এ পার্কটির কোন সাপ্তাহিক বন্ধ নেই। মাঝেমধ্যে অনাকাঙ্ক্ষিত কারণে বন্ধ থাকতে পারে। যদি বন্ধু থাকে তবে তা তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হয়।

শ্যামলী শিশু মেলা

মাঝেমধ্যে দুই একটি টেকনিক্যাল সমস্যা হলে কিছু রাইডস বন্ধ থাকতে পারে। কিন্তু মূল গেট আপনার জন্য সব সময় খোলা রয়েছে। তাই আবারও বলছি শিশু মেলাতে কোন সাপ্তাহিক বন্ধ নেই কারণ এটি একটি বেসরকারি বিনোদন কেন্দ্র।

শিশু মেলা শ্যামলী টিকেট মূল্য ২০২৪

শিশু মেলা (Shishu mela) তে আগে প্রবেশ মূল্য ৬০ টাকা থাকলেও বর্তমানে তা বাড়িয়ে ১০০ টাকা করা হয়েছে। দু বছর নিচে বাচ্চাদের কোন টিকেট কাটতে হবে না। তবে প্রবেশের পর প্রতিটি পরিদর্শনীতে ওঠার জন্য ৫০ থেকে ৮০ টাকা দিতে হবে।

ঘুরে আসুনঃ ঢাকা শিশু পার্ক, শাহবাগ

সবগুলো রাইডস শুধুমাত্র শিশুদের জন্য নয় কিছু কিছু প্রাপ্তবয়স্কদের জন্যও রয়েছে। ঢাকার আর একটি জনপ্রিয় পার্ক হল ঢাকা শিশু পার্ক, চাইলে ঘুরে আসতে পারেন।

শ্যামলী শিশু পার্ক

আসলে শ্যামলের শিশু পার্ক বলতে কিছু নেই। শ্যামলী শিশু পার্ক বলতে মূলত শিশু মেলা কে বোঝায়। যার বর্তমান নাম ডিএমসিসি ওয়ান্ডার ল্যান্ড (DNCC WonderLand).

শিশুমেলা শ্যামলী সময়সূচী ২০২৩

গ্রীষ্মকালীন সময়ে সকাল দশটা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকে এবং শীতকালীন সময়সূচি অনুসারে সকাল দশটা থেকে রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত খোলা থাকে।

শিশুমেলা শ্যামলী টিকেট মূল্য ২০২৪

ছোট বাচ্চাদের যাদের বয়স দুই বছরের কম তাদের কোন টিকেট লাগেনা। তবে দুই বছরের মধ্যে সকল কেই টিকিট কাটতে হবে। যেটা ২০২২ সালে ছিল ৬০ টাকা বর্তমানে ২০২৩ সাল থেকে তা বাড়িয়ে ১০০ টাকা করা হয়েছে।

Similar Posts