Mohanpur parjatan centre | মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র সম্পর্কে বিস্তারিত 2023

5/5 - (1 vote)

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র (Mohanpur Parjatan Centre) যার পূর্ণ নাম মোহনপুর পর্যটন লিমিটেড, বাংলাদেশের চাদপুর জেলার মতলব উত্তর, মোহনপুরে অবস্থিত একটি অন্যতম আকর্ষণীয় একটি পর্যটন কেন্দ্র। প্রতিদিন সূর্যের নতুন রোদ, এক একটি নতুন স্বপ্নের সুচনা জাগায় এই মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র। প্রিয় মানুষটির সাথে একসাথে সূর্যাস্ত দেখার মজাই আলাদা, আর সেই সুযোগ তৈরি করতে মেঘনা নদীর পাড়ে বেক্তিগত উদ্যোগে গড়ে উঠা এই পর্যটন কেন্দ্রটি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করবে আসা করা যায়।

আপনি কি শিক্ষা, ট্রেনের খবর, ট্রাভেল গাইড, মার্কেট গাইড সহ সকল জেলার আপডেট পেতে চান ? আপনাকে উঁকি মারতেই হবে আমাদের ফেসবুক পেজ এ!!

প্রতিদিন দেশের নানা প্রান্ত থেকে ভ্রমণ পিপাসু মানুষজন দল বেধে এই মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্রের সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসেন।এটি ২০২০ সালে কাজি মোঃ মিজানুর রহমান এর ব্যবস্থাপনায় তৈরি করা হয়। ঢাকা জেলা থেকে প্রায় ১০৭ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই পর্যটন কেন্দ্রটি প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য খোলা বা উন্মুক্ত থাকে।এটি মিনি কক্সবাজার মোহনপুর নামেও পরিচিত।

Mohanpur parjatan centre মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র টি মোহনপুর লঞ্চঘাট এর উত্তর পাশে অবস্থিত এর পূর্ব পাশে মেইন রোড ও পশ্চিমে অনেক আয়তন জুড়ে মেঘনা নদীর পাড় ঘেসে তৈরি করা হয়েছে। এখানকার রাস্তার মাঝখানের লাইটিং পর্যটককে আকৃষ্ট করবে। যদি কেউ সাতার না জেনে থাকে তবুও এখানে আসতে পারবে কারন এখানে সব কিছুর ব্যবস্থা করা আছে। এছাড়াও এখানে রয়েছেঃ

  • থিম পার্ক
  • কটেজ
  • মার্কেট সহ
  • বিভিন্ন প্রকারের বিনোদন ব্যবস্থা।
মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র

এখানে প্রায় একসাথে ৫০০০( পাঁচ হাজার) মানুষ একত্রে বসে সভা সেমিনার করতে পারবেন সেই ব্যবস্থা রয়েছে।সড়ক পথে, নৌপথে উভয়ভাবেই এই পর্যটন কেন্দ্রে আসা যাবে সহজেই। শুধু তাই নয়, এখানে প্রায় ৩০০ মানুষ (পুরুষ ও মহিলা) এর কর্মসংস্থান রয়েছে এবং প্রায় ৫০ টির বেশি দোকান পাট রয়েছে।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র কিভাবে যাবো ?

  • সড়ক পথঃ সড়ক পথে যেতে হলে আপনাকে প্রথমে ঢাকার সায়দাবাদ থেকে বাসে উঠতে হবে (কুমিল্লাগামি যেকোনো বাস)। তারপর কুমিল্লার দাউদকান্দি নেমে গিয়ে সিএনজি করে সিরারচর, এখান থেকে আবার সিএনজি করে প্রথমে মতলব ও পরে মোহনপুর যেতে পারবেন। খরজ হবে ৩০০ টাকার মত।
  • নৌপথঃ ঢাকা থেকে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ যেতে হবে। নারায়ণগঞ্জ লঞ্চ টার্মিনাল হতে মোহনপুরগামী যেকোনো লঞ্চে করে ২ থেকে ২.৩০ ঘন্টার মধ্যে মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্রে পৌঁছানো যাবে খুব সহজেই।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র টিকেট মূল্য

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্রে প্রবেশ মূল্য মাত্র ১০০ টাকা। তবে এখানে পারকিং এর জন্য আলাদা চার্জ করা আছে। যারা নিজস্ব উদ্যোগে নিজের গাড়ি করে আসবেন এই বিষয়টি মাথায় রাখবেন। এখানে আকর্ষণীয় অনেকগুলো রাইডস রয়েছে। প্রতিটি রাইডস এ আপনাকে আলাদা খরচ বহন করতে হবে। এখানে সিঙ্গেল বা কাঁপল কিটকট (ছাতা) এর বেবস্থা আছে যার ঘণ্টা প্রতি ভাড়া ৩০ টাকা করে।

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্রের রাইডস সমূহ

এখানে রয়েছেঃ

  1. দ্যা শিপ ইন
  2. রিভার বীচ
  3. কিটকট(ছাতা)
  4. স্পিডবোর্ড রাইডস
  5. ঘোড়া রাইডস
  6. নৌকা রাইডস
  7. পিকনিক স্পট
  8. শিশু পার্ক
  9. সুইমিং পুল এবং
  10. থিম পার্ক

চাদপুর মিনি কক্সবাজার

মোহনপুর পর্যটন কেন্দ্র (Mohanpur Parjatan Centre) যেটি চাদপুর শহরের মিনি কক্সবাজার নামে পরিচিত।কারন এখানে কক্সবাজারের মত নানান কিটকট(ছাতার মত) সারি সারি ভাবে মেঘনা নদীর পাড় ঘেসে সাজানো আছে।এখানে বসে নদীর সুবিশাল বিস্তীর্ণ জলরাশি উপভোগ করে যায়।সেই সাথে জাপানে যেমন সূর্যদয় দেখা যায় ঠিক অনুরূপভাবে এখানে সূর্যাস্ত দেখা যায়।

জেনে নিন ঢাকার ১০ টি দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে

Similar Posts