ইসলামপুর মার্কেট কবে বন্ধ থাকে | ইসলামপুর মার্কেট কোথায়

5/5 - (1 vote)

মার্কেট বা বাজার স্থানীয় অর্থনীতির একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তাই আজকে আমরা বিস্তারিত জানার চেষ্টা করব, ইসলামপুর মার্কেট কবে বন্ধ থাকে, ইসলামপুর মার্কেট কিভাবে যাব, ইসলামপুর মার্কেট কোথায় ইত্যাদি সম্পর্কে। তাই মনোযোগ দিয়ে পোস্ট টি পরুন।

একটি মার্কেট শত শত মানুষের আত্ম নির্ভরশীলতা প্রদান করে এবং পণ্য ক্রয়-বিক্রয়ের একটি অপরিহার্য উৎস হিসেবে কাজ করে করে। ইসলামপুর মার্কেট এমন একটি মার্কেট যেখানে পুরো বাংলাদেশের অনেক দোকানদার ও অনলাইন প্লাটফর্ম এর অনেক ব্যবসায়ীর পাইকারিতে পণ্য ক্রয় এর জন্য একটি আদর্শ মার্কেট। কেননা এখানে খুব কম দামে ভাল ভাল পোশাক ও আকর্ষণীয় পণ্য বেচাকেনা হয়ে থাকে।

ইসলামপুর মার্কেট কবে বন্ধ থাকে
ইসলামপুর মার্কেট কবে বন্ধ থাকে এবং বিস্তারিত

ইসলামপুর মার্কেট | Islampur Market

ইসলামপুর মার্কেট ( Islampur Clothes Market) বাংলাদেশের ঢাকায় অবস্থিত একটি সুন্দর এবং প্রাণবন্ত মার্কেটপ্লেস। প্রতিদিন, বিভিন্ন ব্যবসায়ী এবং গ্রাহকদের পণ্য, পরিষেবা এবং আরও অনেক কিছুর জন্য এই মার্কেটটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অনেক মানুষের ভিড়ের কারনে হট্টগোলের সৃষ্টি হয় এবং ধাক্কাধাক্কিতে জড়িত থাকতে দেখা যায়।

জেনে নিন গুলিস্তান মার্কেট এ কেনাকাটার গাইডলাইন

এখানকার রাস্তা দিয়ে হাটা প্রায় মুশকিল। কেননা রাস্তার প্রায় সবটুকু জুড়ে রিক্সা চলাচল করে। রিক্সার জন সামান্য হাটার মত পরিবেশ ও থাকে না। বছরের পর বছর ধরে বাজারটি আকার, পরিধি এবং জনপ্রিয়তা বেড়েছে। এটি তার ঐতিহাসিক যে সৌন্দর্য সেই পরিবেশ বজায় রেখেছে।

ঢাকার ইসলামপুর মার্কেট ( Islampur Market) বাংলাদেশের প্রাচীনতম ( ব্রিটিশ আমলে আনুমানিক ১৭৭০ সাল এ প্রতিষ্ঠিত) এবং সবচেয়ে প্রাণবন্ত মার্কেট গুলোর মধ্যে একটি। এখানে শাড়ি, থ্রি পিস, লুঙ্গি, পাঞ্জাবী, গামছা, সহ নিত্য প্রয়োজনীয় সকল ধরনের পণ্য পাওয়া যায় খুব স্বল্প মূল্যে।

এটি কয়েক শতাব্দী ধরে অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপের পাশাপাশি ঢাকার এবং বাংলাদেশের জনগণের কাছে প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়- বিক্রয়ের একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রস্থল এ পরিনত হয়েছে।

ইসলামপুর মার্কেট কোথায়

এই মার্কেট ঢাকার প্রাণকেন্দ্র ইসলামপুরে অবস্থিত। এই মার্কেটটি ১৭৭০ সাল থেকে পরিচালিত হচ্ছে। এই মার্কেট এর চারপাশে বাবুবাজার, বুড়িগঙ্গা সেতু(২য়), আহসান মঞ্জিল, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল, এবং ঢাকার কেরানীগঞ্জ অবস্থিত। বাজারটি পর্যটক থেকে শুরু করে স্থানীয় সব ধরনের গ্রাহকদেরই একটি গুরুত্বপূর্ণ পণ্য পরিবহন কেন্দ্র।

জেনে নিন গাউছিয়া মার্কেট সম্পর্কে বিস্তারিত

কার্যত যে কোনও আইটেমের জন্য একটি দর কষাকষি খুঁজে পাওয়া যায় এই মার্কেটে৷ উপরন্তু, এই মার্কেট তার বন্ধুত্বপূর্ণ এবং স্বাগত পরিবেশের জন্য পরিচিত। এটি একটি ন্যায্য ও কম মূল্যে বিভিন্ন আইটেম খুঁজে পাওয়ার জন্য ক্রয় করার জন্য একটি দুর্দান্ত জায়গা।

ইসলামপুর মার্কেট কবে বন্ধ থাকে

ইসলামপুর মার্কেট শুক্রবার ছাড়া সপ্তাহের সকল দিনই খোলা থাকে। প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত সাধারণত খোলা থাকে।

ইসলামপুর মার্কেট বন্ধ কবে ?

  • বাংলাদেশ সরকার এর মার্কেটিং নিয়ম অনুসারে ইসলামপুর মার্কেট এর সাপ্তাহিক বন্ধ শুক্রবার। তাই বলা যায় ইসলামপুর মার্কেট শুক্রবার বন্ধ থাকে। এছাড়া প্রতিদিন সকাল (৯টা) থেকে রাত (৮টা) পর্যন্ত জাঁকজমকের সহিত খোলা থাকে।
জেনে নিনঃ ঢাকার কোন মার্কেট কবে বন্ধ থাকে

এই মার্কেট হল বিভিন্ন ধরনের কার্যকলাপের একটি মৌচাক যেখানে শত শত ক্রেতারা মৌমাছির মত পোশাক, গয়না এবং ইলেকট্রনিক্স সহ বিভিন্ন ধরণের পণ্য কেনার জন্য ঝাকে ঝাঁকে এসে ভিড় করে। জেনে নিন মৌচাক মার্কেট সম্পর্কে বিস্তারিত। বাজারের দর্শনীয় স্থান এবং আকর্ষণীয় দোকানগুলো এটিকে দেখার জন্য একটি উত্তেজনাপূর্ণ জায়গা করে তোলেছে।

ইসলামপুর মার্কেট কিভাবে যাব

ইসলামপুর মার্কেট যাওয়ার জন্য বিভিন্ন পথ রয়েছে। গুলিস্তান কিংবা কেরানীগঞ্জ কিংবা বুড়িগঙ্গা সেতু দিয়ে যাওয়া যাবে। কিভাবে যাবেন জানতে বিস্তারিত পড়ুন।

দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে ঢাকার গুলিস্তান আসা যায়। তাই এখান থেকে কিভাবে যাবেন সেটা বলে দিচ্ছি। ইসলামপুর বাজারে যাওয়া তুলনামূলকভাবে সহজ। যারা পাবলিক ট্রান্সপোর্ট নিতে পছন্দ করেন, তাদের জন্য মার্কেটটিতে বাস এবং প্রাইভেট কার এর পাশাপাশি সিএনজি করেও জেতে পারবেন।

  • প্রথমে গুলিস্তান ওভারব্রিজ এর এখান থেকে বাসে উঠতে হবে ( দিশারি পরিবহন কিংবা আকাশ পরিবহন)।
  • বাসে করে বুড়িগঙ্গা ২য় সেতুর উপর নামতে হবে।
  • তারপর এখান থেকে ওভারব্রিজ থেকে সিঁড়ি দিয়ে নেমে বরাবর হাঁটলেই ইসলামপুর বাজার গলি খুজে পাবেন।
  • মুলত এটিই ইসলামপুর মার্কেট গলি। এখান দিয়ে পায়ে হেটে অথবা রিক্সা নিয়ে পুরো মার্কেট ঘুরে আপনার পছন্দ অনুযায়ী কেনা কাটা করতে পারবেন।
জেনে নিন ঢাকায় কম দামে কেটাকাটার সেরা ৩টি মার্কেট
ইসলামপুর থ্রি পিস মার্কেট
ইসলামপুর থ্রি পিস মার্কেট

ইসলামপুর মার্কেটে কি কি পাওয়া যায়

ইসলামপুর মার্কেটে থ্রি পিস, টাঙ্গাইল এর শাড়ি, বেনারসি, কাতান, প্রিন্টের কাপড়, লুঙ্গি, গামছা সহ শার্ট-প্যান্ট, তাতের কাপড়, গজ কাপড়, পর্দা পাওয়া যায়। এছাড়াও এখানে কাপড়ের পাশাপাশি নানান ধরনের ইলেকট্রিক ও ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশ সহ বিভিন্ন ধরনের ফাস্টফুড আইটেম এবং প্লাস্টিক পণ্যের বিশাল সমাহার রয়েছে।

বাংলাদেশের ঢাকার ইসলামপুর বাজার দক্ষিণ এশিয়ার প্রাচীনতম এবং প্রাণবন্ত বাজারগুলির মধ্যে একটি। পোশাক, গয়না এবং মশলার রঙিন বিন্যাসের সাথে, এটি পর্যটক এবং স্থানীয়দের জন্য একইভাবে একটি প্রিয় গন্তব্য। যদিও এটি একটি কেনাকাটার জন্য স্বর্গের চেয়েও বেশি কিছু, ইসলামপুর মার্কেট একটি অনন্য সাংস্কৃতিক অভিজ্ঞতা এ কথাই বলে।

অরজিনাল থ্রি পিস চেনার উপায়

এখানকার অরজিনাল থ্রি পিস চেনার একটি উপায় হচ্ছে কাপড়ের নিচের দিকে সাদা দাগ বা পাড় এর অপর লিখা থাকবে( যেমনঃ পাকিস্তানী থ্রিপিস কোঃ লিঃ) আর যেটা কপি সেখানে কোন লেখা থাকবে না বা থাকলেও দেশীয় কোন লেখা থাকবে সেটি দেখে আপনি নিজেই বুজতে পারবেন।

ইসলামপুর মার্কেটের কাপড় বাংলাদেশের সবচেয়ে অনন্য এবং স্টাইলিশ। বিভিন্ন রঙ, ডিজাইন এবং কাপড়ের সাথে, ক্রেতারা প্রতিটি অনুষ্ঠানের জন্য আপনার পছন্দের কাপড় খুঁজে পেতে পারেন সহজেই। আপনি ঐতিহ্যগত বা আরও আধুনিক কিছু খুঁজছেন তাহলে ইসলামপুর মার্কেট আপনার জন্যই। এখানে সবার জন্য কিছু না কিছু আছে।

এই বাজারে আপনি বিভিন্ন ধরণের পণ্য পেতে পারেন যেমন বিভিন্ন ধরনের খাবার, ফল, ফুল, মুদি, ফ্যাশন পন্য, ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য, গৃহস্থালি প্রাপ্তি, কাপড়, গহনা, ইত্যাদি। এখানে রমজান মাসের উপলক্ষে বিশেষ ছাড় এর বাবস্থা থাকে।

ইসলামপুর থ্রি পিস মার্কেট

ইসলামপুর থ্রি পিস এর জন্য প্রসিদ্ধ একটি মার্কেট। এখানে সর্বনিম্ন ৩৫০ টাকা থেকে শুরু করে দামি দামি থ্রি পিস পাওয়া যায়। তবে এখানে অরজিনাল থ্রি পিস এর পাশাপাশি বিভিন্ন কপি থ্রি-পিস পাওয়া যায়। তাই সাবধান থাকতে হবে। এক এক দুকানে এক এক রকম দাম চাইতে পারে। আবার বলতে পারে যে সর্বনিম্ন কত পিস নিতে হবে।

ইসলামপুর শাড়ির মার্কেট

এখানে পাওয়া যায় এমন জামাকাপড়গুলির মধ্যে শাড়ি অন্যতম। বেনারসি শাড়ি, টাঙ্গাইল এর শাড়ি, দেশি কাতান, ইন্ডিয়ান কাতান, প্রিন্টের ছাপা শাড়ি থেকে শুরু করে জামদানী ও বিভিন্ন তাত এর শাড়ি মাত্র ৪০০ টাকা থেকে শুরু হয়ে ৫০০-৬০০ বা এরও বেশি দামি শাড়ি পাওয়া যায় এই মার্কেটে।এই শাড়ি গুলো শুধু কেবল ফ্যাশনেবলই নয়, সেগুলির দামও যুক্তিসঙ্গত, যে কোনও অনুষ্ঠানের জন্য উপযুক্ত পোশাক নিয়ে আসা সহজ করে তোলেছে এই মার্কেট।

Similar Posts